• চৈনিক-দাওয়াই-বাওহে-ওয়ান
    ইমরুল কায়েস,  ভ্রমণ কাহিনী,  সাহিত্য

    চৈনিক দাওয়াই বাওহে ওয়ান

    চৈনিক দাওয়াই বাওহে ওয়ান: জাদুকরী এক পথ্য চীনের খাবার দাবার নিয়ে আমাদের দেশে নানা কথা প্রচলিত। প্রতিবারই চীনে আসলে পরিচিতজনরা জিজ্ঞেস করে কি খাচ্ছি, খেতে পারছি কিনা ইত্যাদি। খাবার দাবার নিয়ে আমার কখনো তেমন কোন সমস্যা হয় না। আমি শুধু বলে দেই হালাল ফুড দিতে। সাথে ফলমূল। চীনের প্রায় সব শহরে মুসলিম রেস্টুরেন্ট আছে। এসব রেস্টুরেন্টে সব হালাল ফুড। এমনকি চীনাদের বললেও ওরা ব্যবস্থা করে দেয়। চীনাদের খাবারে যারা শুধু পোকামাকড় খোঁজে তাদের জানা দরকার এ দেশে বিভিন্ন পদের মাছ, গরু, হাঁস, মুরগী, পাখির মাংস সমান জনপ্রিয়। বেইজিং ডাকের কথা তো সর্বজন বিদিত। দেশের পাশাপাশি বিদেশেও বেইজিং ডাক অর্থাৎ বেইজিংয়ের…

  • ইয়ানছি-হোটেল-ও-করোনা-সতর্কতা
    ইমরুল কায়েস,  ভ্রমণ কাহিনী,  সাহিত্য

    ইয়ানছি হোটেল ও করোনা সতর্কতা

    ইয়ানছি হোটেল ও করোনা সতর্কতা ইমরুল কায়েস   চীনের কুনমিংকে বলা হয় বসন্তের নগরী। বছরের প্রায় পুরোটা সময় জুড়ে বসন্তকালের আধিপত্য। আবহাওয়া খুবই সুন্দর। খানিকটা শীতলতার পরশ বোলানো। কিন্তু একেবারে শীতার্ত নয়। এর আগেও বেইজিং যেতে কুনমিং হয়ে যাওয়া পড়েছে। কিন্তু থাকার সুযোগ হয়নি। কুনমিং হল চীনের গেটওয়ে। এই শহরকে ফুলের শহরও বলা হয়। কারণ পুরো শহর জুড়ে রয়েছে ফুলের ছড়াছড়ি। পাহাড়ের পাদদেশে মনোরম নয়নাভিরাম একটি শহর। এবার এই শহরে বেশ কয়েকদিন থাকতে হবে। রাতের বেলা রাস্তার আলোকবাতি, স্বল্প গাড়ি-ঘোড়া আর আশপাশের আলোকোজ্জ্বল ভবন ছাড়া কিছু চোখে পড়ছে না। বিমানবন্দর থেকে হোটেলে পৌঁছাতে খুব বেশি সময় লাগেনি। আধা ঘণ্টার ড্রাইভ।…

  • ইমরুল কায়েস,  ভ্রমণ কাহিনী,  সাহিত্য

    আমি ভিআইপি?

    আমি ভিআইপি? ইমরুল কায়েস   ১৩ জুন সন্ধ্যা ছুঁই ছুঁই। এমন সময় আমাদের বহনকারী চায়নাগামী বিমানটি ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আকাশে উড়লো। চায়না ইস্টার্নের বোয়িং বিমান। যাত্রী প্রায় আড়াইশ’র মত, ২৪২ জন। মজার ব্যাপার হল পুরো ফ্লাইটে বিদেশি আমি একাই। বাকী সবাই চীনা। এদের মধ্যে একজন আমার চেনা জানা। আর কাউকে চিনি না। ও কাজ করে ঢাকার চায়না দূতাবাসে। নাম শি শাওহুয়া। ইংরেজি নাম রুবি। চাইনিজ নাম উচ্চারণ করা কষ্টসাধ্য। এজন্য দেশের বাইরে কাজ করা চীনাদের সবার একটা করে ইংরেজি অথবা সংশ্লিষ্ট দেশের ভাষায় নাম থাকে। কাজের সুবিধার জন্যই এই ব্যবস্থা তাদের। বাকী যাত্রীরা কাজ করে বাংলাদেশের মেট্রোরেলসহ বিভিন্ন চাইনিজ…

error: Content is protected !!