একমুঠো-রৌদ্র
কবিতা,  মো. হাতেম আলী,  সাহিত্য

একমুঠো রৌদ্র

একমুঠো রৌদ্র
মো. হাতেম আলী

 

আমিও না হয় হারিয়ে যাবো
আকাশে লুকিয়ে থাকা তারাদের মাঝে।
মনে পড়ে যদি দেখে নিও মেঘের আড়াল হতে
লজ্জাবতী’র নুইয়ে পড়া পাতার খাঁজে।
দেখে নিও দুচোখ ভরে সাঁঝের বাতি জ্বেলে
অন্ধকারে হাতরে ফিরো
এক নরম হাতের পরশ পেতে।

 

জোৎস্নার পরশ হয়তো পাবো না কোনদিনই
কারণ, এক খন্ড কালো মেঘ জমে আছে আমার আকাশ জুড়ে।
মনের জমিন চষে বেড়িয়েছি জীবনভর
কিন্তু আমি যে এক অসহায় বর্গা চাষী।
মালিকের ভাগ বুঝে দিয়ে
আমি এক শূন্য মুসাফির কষ্টগুলো নেই কুড়ে,
আবার স্বপ্ন বুনি একমুঠো রৌদ্র পাবো বলে।

 

বীজতলা ভরে আছে আগাছায়,
ক্ষুদার্থ কীটপতঙ্গ খেয়ে নিচ্ছে চারাগাছ
প্রাণপণ লড়াই করে তবুও টিকে আছে বস্ত্রহীন
একটি লিকলিকে দেহ।
আকাশ বর্ষণ হবেই সেই আশায়
আবার হয়তো পত্র গজাবে
ফুটবে মঞ্জুরিত ফুল,
হবে ফল খাবে পাখির দল
প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষার্থে।
হারিয়েও আমি জেগে রবো যুগ যুগ
কলম চাষী হয়ে-
কোন এক প্রভাতে
একমুঠো শুভ্রতা বিলিয়ে দিতে দ্বারে দ্বারে।

 

আরও পড়ুন কবিতা-

অষ্টাদশী মন

রহস্যের সন্ধান

লাল সূর্যটা নাও

 

ঘুরে আসুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

Facebook Comments Box

প্রকৌশলী মো. আলতাব হোসেন, সাহিত্য সংস্কৃতি এবং সমাজ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে নিবেদিত অলাভজনক ও অরাজনৈতিক সংগঠন "আমাদের সুজানগর"-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং "আমাদের সুজানগর" ওয়েব ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশক। সুজানগর উপজেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ, কৃতি ব্যক্তিবর্গ ইত্যাদি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন। বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি স্বনামধন্য ওয়াশিং প্লান্টের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেকশনে কর্মরত আছেন। তিনি ১৯৯২ সালের ১৫ জুন পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার অন্তর্গত হাটখালী ইউনিয়নের সাগতা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

error: Content is protected !!